34 C
Dhaka
Sunday, May 29, 2022

Ads by google

সহবাসের সুখ বাড়াতে যা ব্যবহার করবেন

Ads By Google

সহবাসে অধিক আরাম পেতে ভ্যাজাইনা ও পেনিসে লুব্রিকেন্ট (লুব) ব্যবহার করা হয়। কিন্তু সকল লুব্রিকেন্টই একই মানের নয়। বাজারেপ্রাপ্ত বেশ কিছু লুব্রিকেন্টে কড়া কেমিক্যাল থাকে, যা গোপনাঙ্গের সংবেদনশীল ত্বকের জন্য উপযুক্ত নয়।

যৌনাঙ্গের ত্বক এতটাই সংবেদনশীল যে, লুব্রিকেন্ট ব্যবহারের আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া ভালো। যেহেতু বাজারেপ্রাপ্ত কিছু লুব্রিকেন্ট অনাকাঙ্ক্ষিত পরিণতিতে ভোগাতে পারে, তাই অনেক চিকিৎসই প্রাকৃতিক লুব্রিকেন্ট ব্যবহারের পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

নিউ ইয়র্ক মেডিক্যাল কলেজের সহকারী অধ্যাপক আলিসা ডোয়েক বলেন, সহবাসের সময় অস্বস্তি ঘর্ষণ ও সংক্রমণের ঝুঁকি কমাতে কেমিক্যালবিহীন লুব্রিকেন্ট মানে প্রাকৃতিক লুব্রিকেন্ট ব্যবহারই বেশি নিরাপদ।

চিকিৎসকেরা জানান- বাজারেপ্রাপ্ত কিছু লুব্রিকেন্টে এমনও কেমিক্যাল থাকে, যা অন্তরঙ্গ স্থানের ক্ষতি করতে পারে। যদি বাণিজ্যিক লুব্রিকেন্ট ব্যবহার করতে চান, তাহলে লুব্রিকেন্টের প্যাকেটে এসব উপাদান লেখা থাকলে তা এড়িয়ে চলুন- ফ্রাগরানসেস, পারাবিনস, গ্লিসারিন ও প্রপাইলিন গ্লাইকোল। অতিরিক্ত সংবেদনশীল ত্বক, হরমোনের ভারসাম্যহীনতা ও ছত্রাক সংক্রমণের ঝুঁকি বিবেচনায় এসব উপাদানযুক্ত লুব্রিকেন্ট ব্যবহার না করতে পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। এসবের পরিবর্তে প্রাকৃতিক লুব্রিকেন্ট ব্যবহার করতে পারেন, যা নিরাপদে সহবাসের সুখ বাড়াতে পারে। এখানে পাঁচটি প্রাকৃতিক লুব্রিকেন্ট সম্পর্কে বলা হলো।

*নারকেল তেল: ডা. ডোয়েক বলেন, ‘নারকেল তেল একটি জনপ্রিয় প্রাকৃতিক লুব্রিকেন্ট, যেটাকে যৌনাঙ্গের সংবেদনশীল ত্বক সহ্য করতে পারে।’ এর জনপ্রিয়তার অন্যতম কারণ হলো সুঘ্রাণ। এর স্বাদও ভালো, যেকারণে ওরাল সেক্সের জন্যও উপযুক্ত। নিশ্চিত হতে হবে যে, ভার্জিন বা আনরিফাইন্ড নারকেল তেল কিনছেন। রিফাইন্ড নারকেল তেলে অ্যাডিটিভস থাকতে পারে, যা ত্বককে উক্ত্যক্ত করতে পারে। কনডম ব্যবহার করলে অন্যকোনো লুব্রিকেন্ট ব্যবহার করুন। কারণ নারকেল তেল কনডমের কার্যকারিতা কমাতে পারে।

* অলিভ অয়েল: আরেকটি কার্যকরী প্রাকৃতিক লুব্রিকেন্ট হলো অলিভ অয়েল। অ্যাডিটিভস এড়াতে ভার্জিন বা এক্সট্রা ভার্জিন অলিভ অয়েল কিনতে হবে। অলিভ অয়েল খাওয়া নিরাপদ, তাই এটি ওরাল সেক্সেও ব্যবহার করা যাবে। অলিভ অয়েল ব্যবহারে সচেতন থাকুন, কারণ এটি কাপড়ে দাগ ফেলতে পারে। নারকেল তেলের মতো অলিভ অয়েলকেও কনডমের সঙ্গে ব্যবহার করতে পারবেন না। কারণ এটিও কনডমকে অকার্যকর করতে পারে।

* অ্যালোভেরা জেল: রোদে পোড়া ত্বকের চিকিৎসায় প্রায়ক্ষেত্রে অ্যালোভেরা জেল ব্যবহার করা হয়। এটি ত্বকে প্রশান্তিদায়ক অনুভূতি দেয়।এটা যৌনাঙ্গে ব্যবহার করলে ভ্যাজাইনা ও পেনিসের মধ্যকার ঘর্ষণের অস্বস্তি এড়ানো যাবে। সুখময় যৌনজীবনের কথা ভেবে বাসার টবে সীমিত পরিসরে অ্যালোভেরার চাষ করতে পারেন। আপাতত ফার্মেসি থেকে পিউর অ্যালোভেরা জেল কিনে ব্যবহার করতে পারেন। তবে প্যাকেটের লেখা ভালোভাবে পড়ুন। সংবেদনশীল ত্বককে উক্ত্যক্তকারী উপাদান (যেমন- অ্যালকোহল) থাকলে ব্যবহার করবেন না।

* অ্যাভোকাডো অয়েল: নারকেল তেল ও অলিভ অয়েলের মতো অ্যাভোকাডো অয়েলকেও লুব্রিকেন্ট হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। এই তেল খেলেও সমস্যা নেই, তাই ওরাল সেক্সেও ব্যবহার করতে পারবেন। এটি ময়েশ্চারাইজার হিসেবেও কাজ করে। অ্যাভোকাডো অয়েলকেও কনডমের সঙ্গে ব্যবহার করবেন না। কারণ এই তেলও কনডমকে অকার্যকর করতে পারে।

* ভিটামিন ই অয়েল: ভিটামিন ই অয়েলকেও লুব্রিকেন্ট হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। তবে নিশ্চিত হতে হবে যে, পিউর ভিটামিন ই অয়েল ব্যবহার করছেন। এই তেলও কনডমের সঙ্গে ব্যবহার করা উচিত নয়।

সম্পর্কিত

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Ads By Google

সোস্যাল মিডিয়া

50,000ভক্তলাইক
50,000ফলোয়ার্সফলো
50,000ফলোয়ার্সফলো
50,000গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব

Ads By Google

সর্বশেষ

Ads By Google